Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
rahul gandhi

উত্তরের আমেথির পর দ্বিতীয় কেন্দ্র হিসেবে কেরালার ওয়েনাড়কেই বেছে নিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। গত রবিবার সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেস নেতা অ্যন্টনি জানিয়েছেন, “দুটি আসন থেকেই ভোট লড়ার ব্যাপারে রাহুল গান্ধী সম্মতি দিয়েছেন। আমি অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে কেরালার ওয়েনাড় থেকেও তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।” আমেথি থেকে জেতার ব্যাপারে কি আত্মবিশ্বাসী নন রাহুল? সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের উত্তরে দলের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা মোদীর গুজরাট ছেড়ে বারাণসীতে যাওয়ার কথা বললেন আরও বললেন এগুলো নাকি ছেলেমানুষি কথাবার্তা। স্মৃতি ইরানি এবার নাকি হারের হ্যাটট্রিক করবেন বলেই ধারনা তার।”


উত্তর কেরেলার ওয়েনাড় আসনটি তৈরি হয় ২০০৯ সালে। এখানকার জনসংখ্যার একটা বড় অংশই হল আদিবাসী। তার কারনে এই আসনটিকে কংগ্রেসের পক্ষে নিরাপদ আসন বলেই মনে করা হচ্ছে। এর আগের দুই দুবারের ভোটে এখান থেকে জিতেছিলেন কংগ্রেস এমআই শানবাস। যদিও গত বছর তিনি মারা যান।


দ্বিতীয় আসন হিসেবে রাহুল গান্ধী কর্নাটক থেকেই লড়বেন বলে ধারনা ছিল অনেকের। সে রাজ্যে জেডিএস কংগ্রেস জোট বিজেপিকে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে ফেলতে চলেছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কেরালা কংগ্রেসের অনুরোধে ওয়েনাড় থেকেই লড়ার সিদ্ধান্ত নিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।


ওয়েনাড় থেকে রাহুলকে ভোটে দাঁড় করানোর পিছনে কংগ্রেসের যে অঙ্ক জানা যাচ্ছে তা হল তারা রাহুল গান্ধীকে সারা ভারতের নেতা হিসেবে দেখাতে চান এবং একই সঙ্গে এটাও দেখাতে চান যে রাহুলের পিছনে সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষেরই সমর্থন রয়েছে। এর আরও একটা বিশেষ তাৎপর্য আছে। এখানে কংগ্রেসের সঙ্গে সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে এলডিএফের, বিজেপির নয়। সেক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে যে সব কথা বলতে রাহুল গান্ধী অভ্যস্ত, তার থেকে ভিন্ন কথা রাহুলকে এখানে বলতে হবে।

ওয়েনাড়ে ভোট হবে তৃতীয় দফায়, অর্থাৎ ২৩ এপ্রিল। অন্যদিকে আমেথি কেন্দ্রের ভোট হবে পঞ্চম দফায় অর্থাৎ ৬ মে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here